বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 24, 2020
Home টাঙ্গাইল টাঙ্গাইলের উত্তর তারটিয়া ভাঙন প্রতিরোধে গ্রামবাসীর নিঘুম রাত

টাঙ্গাইলের উত্তর তারটিয়া ভাঙন প্রতিরোধে গ্রামবাসীর নিঘুম রাত

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ঘারিন্দা ইউনিয়নের উত্তর তারটিয়া পূর্বপাড়া এলাকায় ভাঙন প্রতিরোধে নিঘুম রাত পার করেছেন গ্রামবাসী। গত দুই দিনের প্রবল বর্ষণের ফলে নদী সংলগ্ন ওই রাস্তাটি ভেঙে যাওয়ার উপক্রম হয়ে পড়েছে। এর ফলে ওই গ্রামের ৩ শতাধিক লোক পানিবন্দি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছেন। ভাঙন প্রতিরোধে এখনো কোন কার্যক্রর প্রদক্ষেপ নেয়নি পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ।
এলাকাবাসী জানায়, প্রচণ্ড বৃষ্টির কারণে গত শুক্রবার উত্তর তারটিয়া পূর্বপাড়া এলাকায় পুংলী নদীর সংলগ্ন রাস্তাটি ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়ে পড়ে। ওই রাস্তাটি বাঁধ হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। পরে ওইদিন গ্রামের প্রায় ১ হাজার লোক স্বেচ্ছায় নিজ উদ্যোগে ভাঙন প্রতিরোধে ৫শ’ বস্তা বালি এবং ৩শ’ বাঁশ দিয়ে কাজ করে। এতে গ্রামবাসীর প্রায় ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়। ওইদিন দুপুরেই বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানো হলে তিনি এলাকাবাসীকে ভাঙন প্রতিরোধ করতে বলেন। ভাঙন প্রতিরোধে যা খরচ হবে তা একটি জরুরি ভাউচার করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে নিয়ে যেতে বলেন। পরে গ্রামবাসীর পক্ষে স্থানীয় ইউপি মেম্বার সৈয়দ কবিরুজ্জামান ডল এবং রবিন তালকুদার একটি ভাউচার তৈরি উপজেলা নির্বাহী অফিসারে কাছে নিয়ে যায়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আতিকুল ইসলাম ওই ভাউচারটি সত্যায়িত করে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলি সিরাজুল ইসলামের কাছে প্রেরণ করেন। পরে ভাউচারটি সিরাজুল ইসলামের কাছে নিয়ে গেলে তিনি জানান, তাদের কাছে জরুরি ভিত্তিতে ভাঙন প্রতিরোধে সরকারি কোন বরাদ্দ নেই। পরবর্তীতে একটি ঠিকাদারের মাধ্যমে ভাঙন স্থান প্রতিরোধ করে ২ থেকে ৩ বছর পরে ঠিকদার বিল উত্তোলন করলে আপনাদের খরচ পেতে পারেন। এ অবস্থায় গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে করোনার সময় স্থানীয়দের যে খরচ হয়েছে তা দ্রুত না পেলে অনেকেই আর্থিক সংকটে পড়বেন। এ অবস্থায় গ্রামবাসী জেলা প্রশাসকের কাছে দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

ব্রেকিং নিউজঃ