জেলা যুবদল ১৯ বছরেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি

165

3জাহিদ হাসানঃ

তিনবার নেতৃত্বের পরিবর্তন আনার পরেও টাঙ্গাইল জেলা যুবদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেননি দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। সংগঠনটির কয়েকজন সাবেক ও বর্তমান নেতা অভিযোগ করেন, মূল দল বিএনপির নেতাদের হস্তক্ষেপের কারণে দীর্ঘ ১৯ বছরে কমিটি গঠন করা সম্ভব হয়নি।
জেলা যুবদলের সাবেক ও বর্তমান একাধিক নেতা জানান, যুবদল প্রতিষ্ঠার পর ১৯৭৮ সালে শ্যামল হোড়কে সভাপতি ও জাকির হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে টাঙ্গাইল জেলা যুবদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি দেড় যুগ নেতৃত্ব দেয়। ১৯৯৬ সালে আলী ইমাম তপনকে আহবায়ক এবং আরও পাঁচজনকে যুগ্ম আহবায়ক করে জেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি ১৪ বছর দায়িত্ব পালন করলেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেনি।
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালে ওই কমিটি ভেঙে কাজী শফিকুর রহমান লিটনকে আহবায়ক এবং আরও চারজনকে যুগ্ম আহবায়ক করে ২৮ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেয় কেন্দ্রীয় যুবদল। এদের তিন মাসের মধ্যে উপজেলা কমিটিগুলোর সম্মেলন শেষ করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের জন্য সময় বেঁধে দেয় কেন্দ্রীয় কমিটি। কিন্তু দুই বছরের বেশি সময়ে তারা উপজেলা সম্মেলনের আয়োজন ও পূর্ণাঙ্গ জেলা কমিটি গঠনে ব্যর্থ হয়।
এ প্রসঙ্গে ওই কমিটির আহবায়ক কাজী শফিকুর রহমান বলেন, ‘দায়িত্ব পাওয়ার পর আমরা বিভিন্ন উপজেলায় সম্মেলন করার উদ্যোগ নেই। কিন্তু বিএনপি মনোনীত সাংসদ প্রার্থীরা তাঁদের নিজ নিজ উপজেলায় সম্মেলন ছাড়া নিজেদের অনুগত লোকদের দিয়ে পকেট কমিটি গঠনের জন্য আমাদের চাপ দেন। আমরা তা না করায় তাঁরা আমাদের অসহযোগিতা করেন। তাই পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা সম্ভব হয়নি।’
সর্বশেষ ২০১২ সালের জানুয়ারিতে খন্দকার আহমেদুল হক শাতিলকে সভাপতি ও আশরাফ পাহেলীকে সাধারণ সম্পাদক এবং রফিকুল ইসলাম স্বপনকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে তিন সদস্যের জেলা কমিটি গঠন করা হয়। এর তিন মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের সময় দেয় কেন্দ্রীয় কমিটি। সাড়ে তিন বছরের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও জেলা যুবদল পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে পারেনি।
এ বিষয়ে আহমেদুল হক শাতিল বলেন, ‘দায়িত্ব পাওয়ার চার মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে আমরা কেন্দ্রে জমা দিয়েছি। কিন্তু জেলা বিএনপির কতিপয় নেতার অযাচিত হস্তক্ষেপে তা এখনো অনুমোদন দেয়নি কেন্দ্রীয় কমিটি।’
বিএনপি নেতাদের হস্তক্ষেপের কারণে টাঙ্গাইল জেলা যুবদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন না হওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলা বিএনপির সভাপতি আহমেদ আযম খান। তিনি দাবি করেন, জেলা যুবদলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। কিন্তু সরকারের অত্যাচার, নির্যাতন ও জুলুমের কারণে নেতাকর্মীরা পালিয়ে থাকায় তা সম্ভব হচ্ছে না।

ব্রেকিং নিউজঃ