জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবলে চমচমের কদর বৃদ্ধি

126

Pora Bari sweetফাহাদ শাওনঃ
টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের শেষ কোয়ার্টার ফাইনালে শুক্রবার বিকেলে ঢাকা অগ্রণী ব্যাংক ক্লাব ১-০ গোলে ঢাকা পুলিশ এসিকে হারিয়েছে। এর ফলে তারা সেমিফাইনালে উত্তীন হয়েছে। আগামী ১৫ নভেম্বর রোববার দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ঢাকা টিম বিজেএমসির সাথে খেলবে ঢাকা অগ্রণী ব্যাংক ক্লাব।
এদিকে জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে টাঙ্গাইলের ঐতিহ্যবাহী মিষ্টি- চমচমের কদর বৃদ্ধি পেয়েছে। টুর্নামেন্টে খেলছে ঢাকার ১০টি দল। প্রতিদিন এ দলগুলোর খাওয়ার মুল মেন্যু হলো টাঙ্গাইলের চমচম। ঢাকার প্রতিটি দলই মাঠে খেলতে আসছে একাধিক গাড়ী বোঝাই করে। টুর্নামেন্টে খেলোয়াররা ছাড়াও ক্লাবগুলোর অফিসিয়াল কর্মকর্তা ও সমর্থকরা খেলার আগে ও পরে ছুটে যাচ্ছে মিষ্টির দোকানগুলোতে। পেট ভরে টাঙ্গাইলের ঐতিহ্যবাহী চমচম খাচ্ছে। সাথে করে নিয়ে যাচ্ছে প্যাকেট করে। এছাড়া টুর্নামেন্টের আয়োজকরাও প্রতিটি ক্লাবকে মিষ্টি মুখ করাচ্ছে। জেলার সবচেয়ে বড় এই ফুটবল টুর্নামেন্ট উপলক্ষে চমচমের ব্যবসা চাঙ্গা হয়ে উঠেছে বলে মিষ্টি ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।
শুক্রবার অনুষ্ঠিত শেষ কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার প্রথম থেকেই উভয় দল সমান তালে খেলতে থাকে। প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় গোলশূন্য অবস্থায়। দ্বিতীয়ার্ধের ৩২ মিনিটের সময়ে গোল করে দলকে লিড এনে দেন অগ্রণী ব্যাংকের পক্ষে মাঠে নামা টাঙ্গাইলের মধুপুরের কৃতী সন্তান তেনজিং (১-০)। একটি গোল হজম করার পর মরিয়া হয়ে উঠে পুলিশ এসি ক্লাব। এ সময় খেলায় উভয় দলই শারীরিক প্রদর্শন করে। সংগত কারণে বারবার থেমে যায় বল। বাধ্য হয়ে রেফারী উভয় দলের ৫ খেলোয়ারকে হলুদ কার্ড দেখিয়ে সতর্ক করেন। খেলার অন্তিম মুর্হুতে দুই দলের খেলোয়াররা হাতাহাতিতে লিপ্ত হয়ে উঠে। পরে ঢাকা পুলিশ এসি ক্লাব আর খেলায় ফিরতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত টানটান উত্তেজনাপূর্ণ অবস্থায় খেলা শেষ হলে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ঢাকা অগ্রণী ব্যাংক ক্লাব।
আজকের খেলা উপভোগ করতে স্টেডিয়ামে আসেন জেলা প্রশাসক মাহবুব হোসেন, পুলিশ সুপার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর ও অগ্রণী ব্যাংকের ডিজিএম মনিরুল ইসলাম।
শনিবার টুর্নামেন্টের প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখী হবে টাঙ্গাইলের ইয়ুথ ক্লাব ও বিকেএসপি।

ব্রেকিং নিউজঃ