গোপালপুরে নৌকা-ধানের শীষের লড়াই

86

Tangail Gopalpur-Pourosava-Pic- 28-12-15কে এম মিঠু, গোপালপুরঃ
টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর পৌরসভা ১৯৭৪ সনে প্রতিষ্ঠিত হয়। এ পৌরসভাটি একটি দ্বিতীয় শ্রেণির পৌরসভা।
জানা যায়, ১৯৭৫ সালের ১৪ আগস্ট এ পৌরসভায় প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হাতেম আলী তালুকদারের পুত্র মতিয়ার রহমান দুদু। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ নেতা এম.এ জব্বার দুই মেয়াদে, বিএনপি’র অন্যতম সংগঠক খন্দকার আবদুল মান্নান একবার প্রশাসক এবং দুইবার নির্বাচিত চেযারম্যান হিসেবে, তৎপরিবর্তীতে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী আবদুল কাদের কবির উজ্জল এক মেয়াদে এবং সর্বশেষে বর্তমান মেয়র গোপালপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি খন্দকার জাহাঙ্গীর আলম রুবেল দুই মেয়াদে মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
এ পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩৬ হাজার ২৮৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৮ হাজার ১৯ জন ও মহিলা ভোটার ১৮ হাজার ২৭০ জন। নির্বাচনি কাজে নির্মিত হবে ১৩টি ভোট কেন্দ্র। ভোটকক্ষ থাকবে ১০৫টি। নির্বাচনী কাজে ইতিমধ্যে ১৩ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ১০৫ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ২১০ জন পোলিং অফিসার নিয়োগের প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে বলে নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর গোপালপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী রকিবুল হক ছানা (নৌকা), বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম রুবেল (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত প্রার্থী আব্বাস আলী (হাতপাখা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগ নেতা বেলায়েত হোসেন (নারিকেল গাছ) প্রতীক নিয়ে নির্বাচনের মাঠে অবতীর্ণ হয়েছেন। এছাড়া নির্বাচনে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১ নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ২ নং ওয়ার্ডে ৫ জন, ৩ নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ৪ নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৫ নং ওয়ার্ডে ৬ জন, ৬ নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৭ নং ওয়ার্ডে ৩ জন, ৮ নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৯ নং ওয়ার্ডে ৩ জনসহ মোট ৩৮ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১, ২, ৩ নং ওয়ার্ডে ৪ জন, ৪, ৫, ৬ নং ওয়ার্ডে ৫ জন এবং ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ডে ৩ জনসহ মোট ১২ প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।
এ পর্যন্ত গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং রির্টানিং অফিসার মাসুমুর রহমান আচরণবিধি লঙ্গনের অভিযোগে বিএনপি প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম রুবেল এবং আওয়ামী লীগ প্রার্থী রকিবুল হক ছানাকে শোকজ করছেন এবং নৌকা প্রতীকের সমর্থক সাবেক কাউন্সিলর মাসুদুর রহমান মাসুমের উপর হামলাকারিদের শাস্তি এবং আচরণবিধি লংঘনের প্রতিবাদে নৌকা প্রতীকের কর্মীরা পুরাতন পৌরসভা চত্বরে এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে।

ব্রেকিং নিউজঃ