গোপালপুরে ডিগ্রি পরীক্ষা হল থেকে আটক ২০টি মোবাইল সেট ভাঙ্গলেন এসিল্যান্ড

185

mobile-phone_82143_0স্টাফ রিপোর্টারঃ
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়তায় টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার হেমনগর কলেজে বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া ডিগ্রি পাস কোর্স পরীক্ষার প্রথম দিনে পরীক্ষা হল থেকে আটক করা ২০টি মোবাইল সেট নিজ হাতে আছড়িয়ে ভাঙ্গলেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাজমা আশরাফি।
কলেজের অধ্যক্ষ বীরেন্দ্র চন্দ্র গোপ জানান, দুপুর একটায় পরীক্ষা শুরু হওয়ার ১৫ মিনিট পর সহকারি কমিশনার ভূমি নাজমা আশরাফি পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করেন এবং ৫ মিনিটের মধ্যে যাদের কাছে মোবাইল রয়েছে তা জমা দিতে বলেন। ২০ জন পরীক্ষার্থী তাদের নিকট থাকা মোবাইল জমা দেয়ার পর সহকারি কমিশনার বারান্দায় গিয়ে মেঝেতে আছড়িয়ে সবকটি মোবাইল সেট ভেঙ্গে ফেলেন। পরীক্ষা শেষে পরীক্ষার্থীরা মোবাইল ভেঙ্গে ফেলার প্রতিবাদ করলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, পরীক্ষা হলে মোবাইল নেয়া অপরাধ। এ জন্য ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে পরীক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে যেকোনো ধরনের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা তিনি নিতে পারেন। কিন্তু মোবাইল আছড়িয়ে ভাঙ্গা কোনো নিয়মের মধ্যে পড়ে কিনা তা তার জানা নেই।
এ ব্যাপারে সহকারি কমিশনার (এসিল্যান্ড) নাজমা আশরাফি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বেআইনীভাবে মোবাইল সেট পরীক্ষা হলে নেয়ায় তা ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। এতে কোনো অন্যায় হয়নি। প্রচলিত আইনে হল থেকে বহিস্কার বা জরিমানা না করে কেন মোবাইল ভেঙ্গে ফেলা হলো এ প্রশ্নে জানান, আইনী ক্ষমতা বলেই তিনি এমনটি করেছেন। এটি কোনো দোষের হয়নি।

ব্রেকিং নিউজঃ