কালিহাতীর সহদেবপুরে সেচ্ছায় রাস্তা মেরামত করছেন এলাকাবাসী

608

স্টাফ রিপোর্টার ॥
জনপ্রতিনিধি থেকেও যেনো নেই! স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পার হয়ে গেলেও পাকা রাস্তার মুখ দেখেনি টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সহদেবপুর ইউনিউনের আকুয়া গ্রামের হাজারও মানুষ। বৃষ্টির মৌসুমে যেনো তা হয়ে দাঁড়ায় মরার উপর খরার ঘা। হাটারই যেনো কোন অবস্থা নেই এই রাস্তায়। তবে এবার এলাকাবাসী নিজেরাই নিয়েছেন নিজেদের উদ্যোগ। মেরামত শুরু করেছেন সেচ্ছায় নিজেদের অর্থায়নে কিন্তু এসব বিষয়ে কথা বলতে রাজি নন উপজেলা চেয়ারম্যান।
টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতী উপজেলার সহদেবপুর ইউনিয়নের আকুয়া গ্রামে প্রায় ৩ কিলোমিটার রাস্তা সেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে মেরামতের কাজ শুরু করেন এলাকাবাসী। গত বছরের বন্যায় ইউনিয়নের নিগইর গ্রাম থেকে আকুয়া পর্যন্ত প্রায় ৩ কিলোমিটার রাস্তাটি ভেঙ্গে যায়। দীর্ঘ দিন পর ভুক্তা হতে নিগইর পর্যন্ত প্রায় ১ কিলোমিটার রাস্তা পাকা হয়েছে। বাকী তিন কিলোমিটার রয়েছে কাচাই। দুর্ভাগ্য যে নিগইর হতে আকুয়া গ্রামের হাজারও মানুষের একমাত্র যাতায়াতের পথ এটি। প্রতিদিনই এই রাস্তা দিয়ে কয়েক হাজার মানুষের চলাচল। কিন্তু দেশের এই উন্নয়নের জোয়ারে এই এলাকা একেবারেই অবহেলিত। স্বাভাবিক একটু বৃষ্টি হলেই একেবারেই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে যায় রাস্তাটিতে। খানাখন্দে ভরা রাস্তায় যত্রতত্র হয় সড়ক দুর্ঘটনা।
স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবীরা টিনিউজকে জানান, দুই/একজন অসুস্থ মানুষ এই রাস্তা দিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাবার আগেই মারা গিয়েছে। কোনভাবেই চলাচল করা যায়না বেহাল এ রাস্তায়। তাই আমাদের মতন চরম অসহায় সুবিধা বঞ্চিত মানুষগুলো আপাতত নিজেদের চলাচলের জন্য নিজেরাই ঐক্য বদ্ধ হয়ে রাস্তা মেরামতের কাজ করছি। বিএস বিশেশ্বরী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রোমেজ উদ্দিন টিনিউজকে জানান, এলাকার জনপ্রতিনিধি সবাইকে এই রাস্তার বিষয়ে বলা হয়েছে বার বার। কিন্তু কোন কাজ হয় নাই। তাই এলাকার সবার কাছ থেকে সহযোগিতা নিয়ে আমরা নিজেরাই কাজ করছি।

ব্রেকিং নিউজঃ