কালিহাতীর এলেংজানী নদীতে বালু বিক্রির অভিযোগ

93

স্টাফ রিপোর্টার ॥
নিলামের নাম করে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেংজানী নদী থেকে ভেকু ও বাংলা ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে। এতে হুমকির মুখে রয়েছে কোটি টাকা ব্যয়ে এলেঙ্গা বাজার ব্রীজ, নদী তীরবর্তী বসতবাড়ী ও বাঁশি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। উপজেলার এলেঙ্গায় বাঁশি গ্রামের প্রভাবশালী দুটি গ্রুপ অবাধে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে অভিযোগ স্থানীয়দের।
জানা যায়, দুই গ্রুপে ৩০-৪০ জন করে দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে বালু ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। সরকারীভাবে নদীর তলদেশ থেকে বালু উত্তোলন করা নিষিদ্ধ থাকলেও তার কোন তোয়াক্কা করছে বালুখেকোরা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা টিনিউজকে জানান, বন্যায় ৩-৪ বার বসতভিটা সরিয়ে এখন নামমাত্র জায়গায় কোনভাবে ঘৃহ নির্মাণ করে বসবাস করছি। তার মধ্যে এভাবে নদী থেকে বালু উত্তোলন চলছে শেষ সম্বলটুকু আগামী বন্যায় হারাতে হবে। আমার কার কাছে জানাবো, প্রতিবাদ করলে দাঙ্গা, হাঙ্গামা ও মিথ্যা মামলা দিয়ে জেল হাজতের ভয় দেখায়।
বালু মহলের একাংশের ঘাট মালিক মাজেদুল ও সফিকুল বলেন, আমরা নিলামের বালু উত্তোলন করছি। স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই দীর্ঘদিন যাবৎ এ ব্যবসা করে আসিতেছি।
অপর অংশের ঘাট মালিক জলিল জানান, আমি এ বিষয়ে জড়িত ছিলাম আগে। এখন জড়িত নেই বলে অস্বীকার করেন।
এ বিষয়ে কালিহাতী উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) কামরুল হাসান টিনিউজকে বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। মাত্র শুনলাম, যত দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ