কালিহাতীর আকুয়াতে রাতের আধাঁরে সরকারি বালু বিক্রির অভিযোগ

82

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের কালিহাতীর আকুয়াতে রাতের আধাঁরে সরকারি বালু বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। সহদেবপুর ইউনিয়নের আকুয়া গ্রামে সরকারি খনন প্রকল্পের উত্তোলন করা বালু রাতের আধাঁরে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ভুক্তা গ্রামের এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে। সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে তারা লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে করে সহজেই ওই প্রভাবশালী মহলটি বনে যাচ্ছে আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ। অন্য দিকে লাখ লাখ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সরকার। স্থানীয়দের অভিযোগ স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েও কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না তারা।

 

স্থানীয়রা টিনিউজকে জানান, বালু বিক্রির কারণে নদী পাড়ের কয়েকশত বসতবাড়ি ও শহর রক্ষা বাঁধ হুমকির মুখে রয়েছে। এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে আকুয়া গ্রামের একমাত্র চলাচলের রাস্তাটি রাতের আধারে বালু বিক্রির কাজে ব্যবহৃত ট্রাক চলাচলের ফলে রাস্তাটির বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। স্থানীয়রা বালু উত্তোলনে বাধা দিলেও তাদের নানাভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়, উপজেলার আকুয়া এলাকায় সরকারি খনন প্রকল্পের বালু থেকে ভুক্তা গ্রামের এক আওয়ামী লীগ নেতা ও সহদেবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের এক নেতা প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে এক মাস যাবত রাতের আঁধারে অন্যত্র বালু বিক্রি করছেন। তাদের অবৈধ বালু বিক্রি বন্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয়রা।

 

স্থানীয়রা টিনিউজকে আরও জানান, ওই আওয়ামী লীগ নেতা প্রশাসনকে ম্যানেজ করে দীর্ঘদিন যাবত মাটির ব্যবসা করে আসছেন। এলাকার কেও বাঁধা দিলে তাকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখানো হয়।

এ বিষয়ে কালিহাতী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল হুসেইন সাংবাদিকদের জানান, অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে উপজেলা প্রশাসন তৎপর রয়েছে। কেউ যদি বালু বিক্রি করে থাকেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ