কালিহাতীতে সরকারি গাড়ী ভাঙচুর প্রকৌশলী আহতের ঘটনায় আড়াইশ’ ব্যক্তির নামে পাউবো’র মামলা

184

সোহেল রানা, কালিহাতী ॥
টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার গোহালিয়াবাড়ী ইউনিয়নে নিউ ধলেশ্বরী নদীতে উত্তোলিত বালু (ড্রেজড ম্যাটার) পরিমাপকারীদের উপর হামলার ঘটনায় কুর্শাবেনু গ্রামের ১২ জনের নাম উল্লেখ করে ২০০-২৫০ জনকে অজ্ঞাত নামা আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) উপ-সহকারী প্রকৌশলী রবিউল আউয়াল মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) মধ্য রাতে কালিহাতী থানায় বেআইনি জনতাবদ্ধে অবৈধ অবরোধ পূর্বক সরকারি কাজে বাঁধা ও মারপিটের অভিযোগ এনে মামলাটি দায়ের করেন। ওই ঘটনায় পুলিশ ৯ জনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) আদালতে পাঠায়। পরে আদালত তাদের জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

মামলায় অভিযুক্তরা হচ্ছেন- আব্দুস সামাদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৫২), হুমায়ুন মিয়ার ছেলে আজিম মিয়া (২৬), জুব্বার আলী আকন্দের ছেলে আব্দুল মান্নান আকন্দ (৪০), মৃত ফজলুল হকের ছেলে আমিনুর রহমান (৪৫), আব্দুল মান্নানের ছেলে শরিফুল ইসলাম (২৭), মৃত মজিবর মন্ডলের ছেলে সাইফুল ইসলাম মন্ডল (৩২), মৃত হাছেন মিয়ার ছেলে মিন্টু মিয়া (৫৬), আমিনুল ইসলামের ছেলে মারুফ (১৯), মৃত ওমর সিকদারের ছেলে ছবুর সিকদার(৫২), মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে মো. রফিক (৪০), মৃত মচু মুন্সীর ছেলে সামছুল (৫৬), ও নাছির (৬৫)। এছাড়াও মামলায় ২০০ থেকে ২৫০ জন অজ্ঞাত নামা ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।

কালিহাতী থানা পুলিশ সোমবার (১৮ জুলাই) বিকালে আটককৃত আব্দুর রাজ্জাক, আজিম মিয়া, আব্দুল মান্নান আকন্দ, আমিনুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম মন্ডল, মিন্টু মিয়া ও মারুফকে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছে এবং অজ্ঞাত নামাদের মধ্য থেকে আমিরুল (৪০) নামের একজনকে মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) ভোরে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান টিনিউজকে জানান, নিউ ধলেশ্বরী নদীতে খননের মাধ্যমে উত্তোলিত বালু পরিমাপকারীদের উপর হামলা, ভাঙচুর ও মারপিটের ঘটনায় কুর্শাবেনু গ্রামের ৯ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে ওই ঘটনায় পাউবো’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী রবিউল আউয়াল বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। এলাকার পরিবেশ এখন শান্ত রয়েছে।

টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ড ও মেসার্স আব্দুল মোনেম লিমিটেডের প্রতিনিধি সমন্বয়ে চুক্তি মোতাবেক উত্তোলিত বালু কুর্শাবেনু এলাকায় পরিমাপ করতে যায়। এ সময় বালু ব্যবসায়ীরা উত্তোলিত বালু পাউবো নিয়ে যাচ্ছে বলে স্থানীয় মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে এলাকার জনসাধারণকে একত্রিত করে। তারা উত্তোলিত বালু পরিমাপকারীদের উপর হামলা করে এবং মেসার্স আব্দুল মোনেম লিমিটেডের ডিজিএম মোস্তাফিজুর রহমানের একটি, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কামরুল হাসানকে বহনকারী একটি এবং পুলিশের একটিসহ মোট তিনটি গাড়িতে ভাঙচুর চালায়। পরে র‌্যাব ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং ঘটনাস্থল থেকে আমিনুর, আজিম, মিণ্টু মিয়া, রাজ্জাক খান, মান্নান, সাইফুল, শরীফ ও মারুফকে আটক করে।

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ