কালিহাতীতে সংঘর্ষের ঘটনায় ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ

307

কালিহাতী প্রতিনিধি ॥
টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে উচ্চ শব্দে গান বাজানো নিয়ে শিহরাইল ও গোপালপুর গ্রামের সংঘর্ষে একজন নিহত ও সংঘর্ষের ঘটনায় দুটি মামলা হয়েছে কালিহাতী থানায়। গোপালপুর গ্রামে হামলার ঘটনায় আহত ইউপি সদস্য ফরমানের স্ত্রী অমেলা বাদী হয়ে শনিবার ( ২৮ মে) দুপুরে ১৫-২০ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত ২০ জনের একটি মামলা করেছেন। অপরদিকে নিহত শিহরাইলের জহিরুল ইসলাম আকাশের বাবা সাইফুল ইসলাম ১২ জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত কয়েকজনের বিরুদ্ধে ঘটনার দিন শুক্রবার (২৭ মে) রাতে একটি হত্যা মামলা করেছেন। এ মামলায় আটককৃতরা হলেন, গোপালপুর গ্রামের ইউপি সদস্য ফরমান আলী, ছোটন ও বলরাম। হামলার মামলায় আটককৃতরা হলেন, শিহড়াইল গ্রামের আজিজুল ও জনি। নিহতের চাচা মোস্তফা কামাল টিনিউজকে জানায়, শনিবার বিকালে জানাযা শেষে নিহত জহিরুল ইসলাম আকাশের মরদেহ শিহরাইল উত্তর-পূর্ব পাড়া কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে একইদিন বিকাল ৪টায় মরদেহ বাড়িতে পৌঁছালে হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। নিহতের মা নসিরন, স্ত্রী খাদিজা, বাবা ও অন্যান্য স্বজনদের কান্নায় শোক নেমে আসে স্থানীয়দের মাঝে। অপরদিকে পাল্টাপাল্টি মামলার ঘটনায় উভয় গ্রামেই আতঙ্ক বিরাজ করছে। শিহরাইল ও গোপালপুর গ্রাম প্রায় পুরুষ শূণ্য হয়ে পড়েছে। কালিহাতী থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান মামলা ও আটকের বিষয় নিশ্চিত করে জানান, জিজ্ঞাসাবাদে হামলা ও হত্যার ঘটনায় আটককৃতদের সম্পৃক্তা পাওয়া গেলে তাঁদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ঘটনাস্থলে পুলিশী টহল রয়েছে।
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৬ মে) রাত সাড়ে দশটায় গোপালপুর (নতুন) পাইলট বাজারে কম্পিইটারের সাউন্ড বক্সে উচ্চ শব্দে গান বাজানোর অজুহাতে শিহরাইলের আাজিজুল আমাদের রাসেলের গায়ে গরম চা ঢেলে দেয়ার ঘটনায় বাগবিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। এঘটনার জেরে শুক্রবার (২৭ মে) সকালে শিহরাইল গ্রামের লোকজন মিলে গোপালপুরে এসে মেম্বারসহ গ্রামের লোকজনকে মারার সময় গ্রামের লোকজন এগিয়ে আসলে সংঘর্ষ একজন নিহত ও পনের জন আহত হয়।

 

ব্রেকিং নিউজঃ