রবিবার, সেপ্টেম্বর 27, 2020
Home অপরাধ কালিহাতীতে মাদক বিক্রিতে অস্বীকার করায় স্ত্রীর চোখে কাঁচির আঘাত

কালিহাতীতে মাদক বিক্রিতে অস্বীকার করায় স্ত্রীর চোখে কাঁচির আঘাত

কালিহাতী প্রতিনিধি ॥
টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে মাদক বিক্রিতে অস্বীকার করায় রাতের আঁধারে সিঁধ কেটে ঘরে প্রবেশ করে স্ত্রীর চোখে স্বামীর কাঁচির আঘাতের ঘটনা ঘটেছে। রোববার (৫ জুলাই) ভোর রাতে উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের মাইস্তা চৌধুরীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত স্ত্রী আঁখি আক্তারকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।
আঁখি আক্তারের কাকা খোকন মিয়া টিনিউজকে জানান, গত সাত বছর আগে মির্জাপুর উপজেলার বুসুন্দী গ্রামের আব্দুল রহমানের ছেলে ফারুক হোসাইনের সাথে তার ভাতিজির বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন তাদের ভালই চলছিল। তাদের সংসারে দুই বছরের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। ফারুকের বাবা বিদেশ থাকায় ফারুক ও তার মা মাদক ব্যবসা করতে থাকে। পরবর্তীতে ফারুক তার স্ত্রী আঁখি আক্তারকে মাদক বিক্রি করতে বললে তাদের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আঁখি তার বাবার বাড়ি চলে আসে। পরবর্তীতে শালিসী বৈঠকের মাধ্যমে মীমাংশা করে আঁখি আক্তারকে ফারুকের বাড়ি পাঠানো হয়। কিন্তু তারপরও ফারুক তার স্ত্রীকে মাদক বিক্রি করতে বলে। কিন্তু আঁখি আক্তার রাজি না হওয়া একাধিক বার তার সাথে ঝগড়া হয় ও একাধিকবার শালিসী বৈঠক হয়। তিনি আরও জানান, গত এক বছর আগে ফারুকের কাছ থেকে আঁখি চলে এসে গাজীপুরে এক গার্মেন্টসে চাকুরী করতে থাকে। সেখানেও তাকে ফোন করে চোখ উপড়ে ফেলাসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয় স্বামী ফারুক।
গত রমজান মাসে ফারুক গাজীপুরে আঁখির বাসায় গিয়ে ছুরি দিয়ে এলোপাথারী কুপিয়ে আঁখি আক্তারকে আহত করে। ওই ঘটনায় গাজীপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। তার পরেও একাধিকবার মোবাইল ফোনে আঁখি আক্তারসহ তার পরিবারের চার সদস্যকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।
রোববার (৫ জুলাই) ভোর রাতে সিঁধ কেটে তার স্ত্রী আঁখির ঘরে প্রবেশ করে মাটিতে নিজের নাম লিখে রেখে কাঁচি (সিজার) দিয়ে আঁখির চোখে ঘা দিয়ে পালিয়ে যায় স্বামী ফারুক হোসাইন। আঁখির আত্মচিৎকারে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে এসে ফারুককে খুঁজতে থাকে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর ফারুককে পাওয়া যায়নি। পরে আঁখিকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন টিনিউজকে জানান, ফারুক হোসাইন মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত আছে বলে তিনি জানতে পেরেছেন। মাদক বিক্রি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর সাথে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। অবশেষে আঁখির ঘা মেরে স্বামী পালিয়ে যায়। এ ধরনের ন্যাক্কার জনক ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তিনি।
কালিহাতী থানার (এসআই) ফজলুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে টিনিউজকে বলেন, অভিযোগ পেলে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ