করটিয়া কাটাখালি খাল উদ্ধারে প্রশাসনের উচ্ছেদ অভিযান

121

1স্টাফ রিপোর্টারঃ
টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়ায় ধলেশ্বরী নদী শাখা কাটাখালি খাল পুণউদ্ধারে জেলা প্রশাসন ব্যাপক উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে। সোমবার থেকে শুরু হওয়া টাঙ্গাইল সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তরিকুল ইসলামের নেতৃত্বে সদর এসিল্যান্ড ও ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা এই অভিযান চালায়। উচ্ছেদ অভিযানে ২০-২৫টি পাকা ও আধাপাকা টিনের ঘর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হয়। দীর্ঘদিন থেকে টাঙ্গাইল জেলার সদর ও বিভিন্ন উপজেলার সরকারী খাল-বিল ও শহরের খাস জায়গাগুলো এক শ্রেণীর অবৈধ দখলদারা বেদখল করে রেখেছিল। এ কারণে শহরসহ বিভিন্ন ক্ষেত খামার ও অন্যান্য কৃষি ভূমিতে জলাবদ্ধতা, ভাঙ্গনসহ পরিবেশের মারাত্মক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে।
জানা যায়, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মাহবুব হোসেনের নির্দেশে সরকারী ভূমির উপর অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ সরকার ও স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ভূমি ও ইমারত পূনরুদ্ধার অধ্যাদেশ ১৯৭০ অনুসারে অবৈধভাবে দখলকৃত ভূূমির উপর নির্মিত স্থাপনা উদ্ধার অভিযান চালানো হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে করটিয়া ইউনিয়নের কাটাখালি খাল, শহরের দেওলাতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে বেশ কিছু সরকারি ভূমি দখল মুক্ত করা হচ্ছে। করটিয়া কাটাখালি খাল উদ্ধার অভিযানে করটিয়ার বিশিষ্ট্য ব্যাক্তিবর্গ, সাধারণ এলাকাবাসি এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগীতায় তারা এ অবৈধ দখলদারদে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনাকারীদেরকে সহযোগীতা করেন। টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ এর সদস্য ও সদর থানার পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতিতে প্রতিদিন সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত এই অভিযান পরিচালিত  হচ্ছে।
এ বিষয়ে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক মাহবুব হোসেন টিনিউজকে জানান, আলোকিত টাঙ্গাইল জেলা গড়ার  ক্ষেত্রে এলাকাবাসিদের সহযোগীতায় বিভিন্ন সরকারি ভূমি, খাল, জায়গা দখল নিতে উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ব্রেকিং নিউজঃ