আওয়ামী লীগের পঙ্গু কর্মীকে রিক্সা উপহার দিলেন ছোট মনির এমপি

111

স্টাফ রিপোর্টার: ২০১৩ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কার প্রচারণা করতে গিয়ে টাঙ্গাইলের গোপালপুরে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসী হামলায় পঙ্গু হওয়া আওয়ামী লীগ কর্মী আব্দুর রহিমকে ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা উপহার দিয়েছেন সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির। বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) রাতে তিনি আলমনগর ইউনিয়নের মাদারজানি গ্রামের আব্দুর রহিমের হাতে অটো রিক্সাটি তুলে দেন। এছাড়াও সংসদ সদস্যের স্ত্রী ঐশি খান আব্দুর রহিমের সন্তানের পড়ালেখার খরচ বহনের দায়িত্ব নেন। এসময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রচারণা করতে গিয়ে গোপালপুরে সন্ত্রাসী হামলায় হাত পা ভেঙ্গে পঙ্গু হন আওয়ামী লীগের ত্যাগী কর্মী আব্দুর রহিম। তিনি আলমনগর ইউনিয়নের মাদারজানি গ্রামের বাসিন্দা। তারপর থেকে দীর্ঘ নয় বছর ধরে তিনি পঙ্গু হয়ে অসহায় জীবনযাপন করতেন। সংসার ও ছেলে মেয়ের লেখাপড়ার খরচ চালাতে হিমশিমে পড়তেন।

 

এমতাবস্থায় এত বছর অতিবাহিত হলেও কেউ তার পাশে দাঁড়ায়নি। অবশেষে দলীয় নেতাকর্মীদের মাধ্যমে খবর পান স্থানীয় সংসদ সদস্য ছোট মনির। তিনি তার সাথে কথা বলে জানতে পারেন ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা পেলে পুনরায় তিনি উপার্জন করতে পারবেন। তখন এমপি তাঁকে ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা কিনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। প্রতিশ্রুতির সাতদিনের মধ্যে নিজস্ব অর্থায়নে তিনি একটি ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সা কিনে আব্দুর রহিমকে উপহার দেন।

 

উপহার পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে আব্দুর রহিম জানান, ২০১৩ সালে সিএনজি করে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কার প্রচারণা করতে গিয়ে বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাসীদের হাতে উপজেলা হাসপাতাল গেটের সামনে নির্মম ভাবে দু-হাত দু-পা ভেঙে পঙ্গু হই। এরপর থেকে অসহায় জীবনযাপন করতে থাকি। প্রতিশ্রুতির ৭ দিনের মধ্যে জীবিকা নির্বাহের জন্য মাননীয় এমপি মহোদয় ব্যক্তিগত অর্থায়নে ব্যাটারি চালিত রিকসা আমাকে উপহার দেন। আমি তাঁর দীর্ঘায়ু ও সুস্থতা কামনা করি।

ব্রেকিং নিউজঃ