সখীপুর ও গোপালপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত

শেয়ার করুন

সখীপুর/ গোপালপুর প্রতিনিধি ॥
ঈদের দিন সোমবার (২৫ মে) টাঙ্গাইলের সখীপুর ও গোপালপুরে আলাদা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত হয়েছে। আর এ ঘটনায় ৪ জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা যায়, টাঙ্গাইলের সখীপুরে ঈদের দিন মোটরসাইকেল নিয়ে ঘোরাঘুরি করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সাদ্দাম হোনেন (১৬) নামে এক স্কুলছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৫ মে) বিকেল ৪টার দিকে পৌর এলাকার কাঁচাবাজারের পাশে একটি দেয়ালে লেগে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মোটরসাইকেল আরোহী অপর দুই বন্ধুর মধ্যে মারাত্মকভাবে আহত কাজী লিয়নকে (১৬) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও আদনান সিকদারকে (১৬) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। হতাহত তিনজনই সখীপুর পাইলট মডেল গভ. স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। নিহত সাদ্দাম পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাবুল মিয়ার ছেলে। প্রত্যেক্ষদর্শীরা টিনিউজকে জানান, মোটরসাইকেল যোগে তিনজন আরোহী উপজেলার শালগ্রামপুর সড়ক দিয়ে সখীপুরে আসছিল। এ সময় মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্থানীয় কাঁচাবাজারের পাশে একটি দেয়ালে লেগে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মাথা ফেটে চালক সাদ্দাম হোসেনের মৃত্যু হয়। জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা শারমিন সেলিম জ্যোতি টিনিউজকে বলেন, মাথায় মারাত্মভাবে আঘাত পাওয়ায় কাজী লিয়নকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সখীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এ.এইচ.এম লুৎফুল কবির টিনিউজকে বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন সড়কে বেপরোয়া গতিতে অনেক কিশোর ও যুবকরা মোটরসাইকেল চালায় বলে উদ্বেগ প্রকাশ করে আরো দুর্ঘটনার আশঙ্কাও করেন তিনি। অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিক্ষার্থীদের হাতে মোটরসাইকেল তুলে না দেয়ার জন্য তিনি অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান।
এদিকে টাঙ্গাইলের গোপালপুরে শ্রমিক নেতা এছহাক আলী (৪৫) সোমবার (২৫ মে) ঈদের দিনে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন। এছহাক গোপালপুর পৌরসভার পাকুয়া (নিচুনপুর) গ্রামের মৃত খোরশেদ আলীর সন্তান। তার স্ত্রীসহ ২ ছেলে, ১ মেয়ে রয়েছে। এদিকে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এছহাকের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছাঁয়া নেমে আসে। তাঁর বাড়িতে শুরু হয় শোকের মাতম। জানা যায়, সোমবার (২৫ মে) বিকেলে এছহাক আলী মোটরসাইকেল নিয়ে গোপালপুর শহরের উদ্দেশ্যে সমেশপুর এলাকায় পৌঁছালে। এ সময় অপরদিক থেকে বেপরোয়াভাবে আসা আরেকটি মোটরসাইকেলের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই এছহাক মারা যান। এ ঘটনায় অপর মোটরসাইকেলের দুই আরোহী আহত হয়েছেন। আহতরা হলো- গোপালপুর উপজেলার মির্জাপুর উত্তর পাড়া গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে সোলায়মান হোসেন (৩৫) এবং লালমনিরহাট জেলার রহমতুল্লাহর ছেলে নাজমুল হোসেন (২৫)। গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার প্রসেনজিৎ পাল টিনিউজকে জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় তিন ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে, এসহাক নামক ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা করা হয়। সে শরীরের বিভিন্ন স্থানে প্রচন্ড আঘাত পায় ও অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে সে মারা যায়। অপর দুইজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ