সখীপুরে মেয়েকে গণধর্ষণের মাসহ দুই ধর্ষক গ্রেপ্তার

শেয়ার করুন

সখীপুর প্রতিনিধি ॥
টাঙ্গাইলের সখীপুরে এক গৃহবধূকে মায়ের সহযোগিতায় (৩২) গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। ধর্ষণে সহযোগিতা করায় ওই গৃহবধূর মা অজুফা খাতুন ও ধর্ষক সাবেক দুই স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে (১৯ মে) ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মাসহ ৬জনকে আসামি করে সখীপুর থানায় মামলা করলে পুলিশ রাতেই ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- সখীপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের আব্দল কাদের (৫৫), উপজেলার কচুয়া গ্রামের আবদুর রহমানের (৩৯)। বুধবার (২০ মে) সকালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্যে গৃহবধূকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ জানায়, গত সোমবার (১৮ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে মা অজুফা খাতুন তার মেয়েকে (ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ) কবিরাজ বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে উপজেলার কীর্ত্তণখোলা ধুমখালি বেইলি ব্রিজের কাছে নিয়ে যায়। সেখানে মোটরসাইকেলযোগে হেলমেটপড়া দুই যুবক আসলে মা কৌশলে মেয়েকে (গৃহবধূ) তাদের হাতে তুলে দেন। পরে তাকে পৌর শহরের একটি পরিত্যক্ত দোকান ঘরে আটকে রেখে তার সাবেক দুই স্বামী আবদুল কাদের (৫৫) ও আবদুর রহমানসহ (৩৯) পাঁচজন মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে ওই গৃহবধূ অসুস্থ হয়ে পড়লে ধর্ষকরা তাকে রেখে পালিয়ে যায়। রাত একটার দিকে বিবস্ত্র অবস্থায় সে পাশের একটি বাড়িতে গেলে ওই বাড়ির লোকজন তাকে কাপড় পড়িয়ে দেয়। পরে তার বর্তমান স্বামীকে খবর দিলে সে স্ত্রীকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যান।
এ ব্যাপারে সখীপুর থানার (ওসি তদন্ত) এএইচএম লুৎফুল কবির উদয় টিনিউজকে বলেন, গৃহবধূর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ধর্ষণে সহযোগিতা করায় মা অজুফাকে এবং সাবেক দুই স্বামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ