Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

মির্জাপুরে ২৩৩টি মন্ডপে চলছে শারদীয় দুর্গাপূজা

শেয়ার করুন

News Ghatail - 17-10-2015স্টাফ রিপোর্টারঃ

হিন্দু ধর্মের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার পূজা মন্ডপগুলোতে চলছে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন। উপজেলায় এবার ২৩৩টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হতে হচ্ছে।
জানা গেছে, উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১৪টি ইউনিয়নের ২৩৩টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে সার্বজনীন ১৬৮টি ও ব্যক্তিগত ৬৫টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলায় প্রায় ২৫টি মন্ডপে ঝুঁকিপূর্ণের আশঙ্কা থাকলেও শান্তিপূর্ণভাবে পূজা পালন হবে বলে পূজা উদযাপন পরিষদেও নেতৃবৃন্দ জানান। গত বছর সরকারের পক্ষ থেকে মন্ডপ প্রতি ৫শ’ কেজি চাল বরাদ্দ ছিল। এবারো আশা করছেন একই রকম অনুদান পাবেন বলে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস জানিয়েছেন। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে মন্ডপে মন্ডপে অনুদান প্রদান করা হচ্ছে। এছাড়া স্থানীয় সংসদ সদস্য একাব্বর হোসেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু, পৌরসভার মেয়র শহিদুর রহমান শহীদ ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরাও মন্ডপে মন্ডপে অনুদান প্রদান করেছেন বলে জানা গেছে।
এবার মির্জাপুর পৌরসভা এলাকায় ৪৫, মহেড়া ইউনিয়নে ১০, জামুর্কী ইউনিয়নে ৩৩, ফতেপুর ইউনিয়নে ১৮, ভাওড়া ইউনিয়নে ৫, বানাইল ইউনিয়নে ১৩, আনাইতারা ইউনিয়নে ৭, উয়ার্শী ইউনিয়নে ১৩, ভাদগ্রাম ইউনিয়নে ২৯, বহুরিয়া ইউনিয়নে ৭, গোড়াই ইউনিয়নে ১৮, আজগানা ইউনিয়নে ৪, তরফপুর ইউনিয়নে ৭, বাঁশতৈল ইউনিয়নে ৫ এবং লতিফপুর ইউনিয়নে ১৯টি মন্ডপে দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অতুল প্রসাদ পোদ্দার জানান, এ বছরে ২৩৩টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গত বছরের পূজা কমিটি দিয়ে এ বছরও পরিচালনা করা হবে। শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মীয় উৎসব পূজা পালন করার জন্য তিনি সকলের কাছে আহ্বান জানান।
এ বিষয়ে মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইন উদ্দিন বলেন, উপজেলার পূজা মন্ডপগুলোতে বিপুল সংখ্যাক পুলিশ, আনসার সদস্য মোতায়েন থাকবে। তাছাড়া র‌্যাব-১২ সদস্যরা নিয়মিত টহলে থাকবেন। পূজা মন্ডপগুলোতে যারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে। মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুম আহমেদ জানান, এবার হিন্দুদের ধর্মীয় উৎসব দূর্গাপূজায় উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে সবধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সবধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ