মির্জাপুরে ভাগ্নির মৃত্যুর শোকে খালার আত্মহত্যা

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার, মির্জাপুর ॥
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে চার বছর বয়সী ভাগ্নি কনিকা পানিতে ডুবে মারা যাওয়ার ঘটনায় ভাগ্নিকে লালন পালন পালনকারী খালা শারমিন (১৭) গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) দুপুর পৌরসভার বাওয়ার কুমারজানী গ্রামের হাতিম টাউন এলাকায় এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহত খালা শারমিন বাওয়ার কুামারজানী গ্রামের শাজাহান মিয়ার মেয়ে।
জানা গেছে, নিহত কনিকার মা সাহিদা বেগম ও বাবা কবির হোসেন গামেন্টেসে চাকুরী করায় ভাড়া বাসা নিয়ে অন্যত্র বসবাস করেন। মা-বাবা দু’জনই কর্মজীবি হওয়ায় মেয়ে কনিকাকে তার নানারর বাড়ি রেখেছিলেন। সেজন্য কনিকাকে তার খালা শারমিনই লালন পালন করতো। বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে সকলের অজান্তে কনিকা বাড়ির পাশে নদীর পানিতে পড়ে যায়। খোঁজাখুঁজির পর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে কুমুদিনী হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় খালা শারমিন ঘরের ভেতর গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। মর্মান্তিক এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানায় যোগাযোগ করা হলে এএসআই নাছিমা আক্তার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে টিনিউজকে বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ