মহেড়ায় বাস চাপায় মা, মেয়ে ও ছেলে নিহত

শেয়ার করুন

মির্জাপুর/ দেলদুয়ার প্রতিনিধি ॥
ঈদ উপলক্ষে বেড়াতে গিয়ে বাস চাপায় একই পরিবারের মা, মেয়ে ও ছেলে নিহত হয়েছে। বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মহেড়া পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার স্টেশন এলাকায় এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। মির্জাপুরের মহেড়া জমিদার বাড়ি (পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার) বিনোদন কেন্দ্রে বেড়াতে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে।
নিহতরা হলো- দেলদুয়ার উপজেলার নাল্লাপাড়া গ্রামের তারা মিয়ার স্ত্রী ফাহিমা বেগম (৩৫), মেয়ে তারিনা আক্তার (১৪) ও ছেলে তানভীর হোসেন (১০)।
মির্জাপুর গোড়াই হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোতালেব হোসেন ও স্থানীয়রা টিনিউজকে জানান, ঈদ উপলক্ষে বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ফাহিমা বেগম তার মেয়ে তারিনা ও ছেলে তানভীরকে নিয়ে মির্জাপুর উপজেলার মহেড়া জমিদার বাড়ি বিনোদন কেন্দ্রে বেড়ানোর উদ্দেশ্যে রওনা হন। পথিমধ্যে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মহেড়া পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার স্টেশন এলাকায় মহাসড়ক পাঁয়ে হেটে পার হওয়ার সময় ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে আসা দ্রুতগামী একটি যাত্রীবাহী বাস (সিরাজগঞ্জ জ-০৪-০০২৯) তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে গোড়াই হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে। ঘাতক বাস এবং বাসের হেলপারকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানা গেছে।
হাইওয়ে পুলিশ কর্মকর্তা টিনিউজকে আরও বলেন, টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে নিহতদের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এদিকে একই পরিবারের ৩জন নিহত হওয়ায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ