মধুপুরে শিশু ধর্ষণ চেষ্টাকারীকে আটক করে পুলিশে দিল জনতা

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের মধুপুরে ৭ বছরের এক শিশু ধর্ষণ চেষ্টাকারী শহীদুল ইসলামকে (২০) আটক করেছে পুলিশে দিয়েছে জনতা। বুধবার (৮ মে) দুপুরে ঘাটাইল উপজেলার পাকুটিয়া এলাকা থেকে তাকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ এসে শহীদুলকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত শহীদুল ইসলাম মধুপুর উপজেলার বেকারকোণা এলাকার শাহজাহান আলীর ছেলে। ওই শিশুটি স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্টেনের নার্সারির শিক্ষার্থী।
জানা যায়, গত শনিবার (৪ মে) দুপুরে ফণীর প্রভাবে বৃষ্টিপাতের সময় মধুপুর উপজেলার আলোকদিয়া ইউনিয়নের বেকারকোণা গ্রামের শহীদুল প্রতিবেশি ওই শিশুটিকে খাওয়ার লোভ দেখিয়ে পাশে নির্মাণাধীন একটি পাকা বাড়িতে নিয়ে যায়। ওখানে নিয়ে সে শিশুটির উপর পাশবিক নির্যাতন করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। শিশুটির কান্নার শব্দে প্রতিবেশী ও পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়। পরে এ ব্যাপারে গত (৫ মে) মধুপুর থানায় একটি ধর্ষণ চেষ্টা মামলা হয়। এরপর বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় লম্পট শহীদুল। কিন্তু তার সন্ধান চেয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়া হয়। পরে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। এরই প্রেক্ষিতে ঘাটাইল পাকুটিয়া বাসস্ট্যান্ডে ঘুরাফেরা করার সময় জনতার হাতে আটক হয় শহীদুল।
এ বিষয়ে মধুপুর থানার (এসআই) আবু হান্নান টিনিউজকে বলেন, এ ঘটনায় ওই শিশুটির পিতা বাদি হয়ে থানায় ধর্ষণ চেষ্টার মামলা দায়ের করেছেন। গত (৬ মে) ওই শিশুটি ২২ ধারায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। পরে বুধবার (৮ মে) দুপুরে ঘাটাইলের পাকুটিয়া এলাকায় অভিযুক্ত শহিদুল ইসলামকে স্থানীয়রা আটক করে পুুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ