ভূঞাপুরে গণপিটুনীতে নিহত মিনুর স্ত্রীকে ৫০হাজার টাকা প্রদান

শেয়ার করুন

ভূঞাপুর প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত টেপিবাড়ি গ্রামের ভ্যান চালক মিনু মিয়ার সন্তঃসত্তা স্ত্রীকে ঢাকাস্থ ভূঞাপুর সমিতির পক্ষ থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে।
গত (১৩আগস্ট) মঙ্গলবার তার নিজ বাড়িতে গিয়ে এই অর্থ তুলে দেন ঢাকাস্থ ভূঞাপুর সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরুল ইসলাম বুলবুল। এসময় উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জের ধামরাই উপজেলার সমাজসেবা অফিসার মোহাম্মদ শিবলীজ্জামান, ঢাকাস্থ ভুঞাপুর সমিতির সহ-সভাপতি গোলাম মোস্তফা গোলাপ, যুগ্ন সম্পাদক নুরুল ইসলাম রাজু, ভূঞাপুর প্রেসক্লাব সভাপতি আসাদুল ইসলাম বাবুল, সদস্য মোস্তফা খলিল রাজু, পৌর কাউন্সিলর সোহেলসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ। অর্থ প্রদান কালে সমিতির সম্পাদক নূরুল ইসলাম বুলবুল বলেন, আমাদের সমিতির সভাপতি বর্তমানে চট্রগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুকের পরামর্শক্রমে এই অর্থ প্রদানসহ মিনুর ছেলের লেখাপড়া করার সকল দ্বায়িত্ব সমিতি বহন করবে।

উল্লেখ্য গত (২১ জুলাই) রবিবার ভূঞাপুর থেকে মাছ ধরার জাল কেনার উদ্দেশ্য কালিহাতী উপজেলার সয়ার হাটে যান মিনু মিয়া। হাটের কিছু লোকজন তাকে ছেলেধরা সন্দেহ করে এবং এলোপাথারি লাঠিশোটা দিয়ে আঘাত করতে করতে বিবস্ত্র করে ফেলে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়। গত (২৯ জুলাই) সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তার অন্তঃসত্তা স্ত্রীসহ চার বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ