Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

বিএনপি-জামায়াত পেট্টোল বোমা মেরে নির্বিচারে মানুষ হত্যা করছে ………কৃষি মন্ত্রী

শেয়ার করুন

12115835_10206184769430475_2742858418155146460_nমাসুদ আব্দুল্লাহ/ফাহাদ আব্দুল্লাহ:

কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত পেট্টোল বোমা মেরে নির্বিচারে মানুষ হত্যা করছে। দেশকে ওরা কালিমা লিপ্ত করছে। ওরা হত্যায় লিপ্ত হয়ে দেশে তান্ডবলীলা চালাচ্ছে। দেশে জঙ্গীবাদের উৎত্থান দিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজকে দেশকে পৃথিবীতে পরিচিতি ঘটিয়েছে উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে। একের পর এক সাফল্য তিনি দেশের মানুষকে উপহার দিয়েছেন। শেখ হাসিনা আজ বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সাথে বসে বাংলাদেশের মানুষের উন্নয়ন নিয়ে কথা বলছেন। তিনি রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু করেন। এখন বিচারকাজ স্বাভাবিকভাবে এগিয়ে চলছে। দেশের বিচার ব্যবস্থা আজ তিনি অনন্য উচ্চতায় অধিষ্ঠিত করেছেন। দেশের মেয়েদের শিক্ষা ব্যবস্থার অনেক উন্নতি ঘটিয়েছেন। এছাড়া তিনি দেশে আইসিটির ব্যাপক প্রসার ঘটিয়েছেন। সেই প্রযুক্তির অপব্যাখ্যা করে বিএনপি-জামায়াতরা ইন্টারনেটের মাধ্যমে রাজাকার সাঈদীকে চাঁদে ছবি দেখাচ্ছে।
মন্ত্রী আরও বলেন, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদের কথা মনে পড়ছে। তিনিতো পুলিশের গুলিতে নিহত হননি। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, আওয়ামী লীগ দলীয় আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত বন্ধ করতে হবে। আওয়ামী লীগে এ ধরনের কোন চক্রান্ত চলবে না। তাহলে সে দলে থাকতে পারবে না। দলীয় অন্তকলহ, স্বার্থান্বেষীদের দল থেকে পরিত্যাগ করতে হবে। সকল হত্যা, ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে।
দীর্ঘ ১১ বছর পর রোববার দুপুরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলমগীর খান মেনুর সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বরাষ্টমন্ত্রী এডভোকেট সাহারা খাতুন এমপি, সাবেক খাদ্যমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, খন্দকার আব্দুল বাতেন এমপি, একাব্বর হোসেন এমপি, ছানোয়ার হোসেন এমপি, অনুপম শাজাহান জয় এমপি, মনোয়ারা বেগম এমপি, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান খান ফারুক, টাঙ্গাইল-৪ আসনের দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থী সোহেল হাজারীসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীরা।
দীর্ঘ ১১ বছর পর অনুষ্ঠিত হয় টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। বিগত ২০০৪ সালের ৫ জানুয়ারি সর্বশেষ টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেই সম্মেলনে অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান খান শাহজাহানকে সভাপতি ও ফজলুর রহমান খান ফারুককে সম্পাদক করা হয়। ৭১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটির সভাপতিসহ ১৩ জন ইতোমধ্যে মারা গেছেন। এছাড়া ৩ বছরের নির্বাচিত কমিটি পার করে ১১ বছর।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ