বাসাইলে দুই স্টাফ নার্সকে মারধর; প্রতিবাদে মানববন্ধন

শেয়ার করুন

বাসাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত সিনিয়র স্টাফ নার্স রোকন আহমেদ ও স্বপ্না আক্তারকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় উপজেলা কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনের নেতারা জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে। বুধবার (১১ জুলাই) দুপুরে উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
ফেডারেশনের নেতারা জানান, গত ৯ জুলাই সন্ধ্যায় বাসাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে খাদিজা বেগম নামের এক ভর্তি রুগির স্বজন ফায়জুর রহমান জরুরি বিভাগে গিয়ে মেডিক্যাল অফিসার নেই কেন জানতে চায় স্টাফ নার্স রোকন আহমেদের কাছে। এক পর্যায় রুগির স্বজন ফায়জুর রহমানসহ কয়েকজন মিলে স্টাফ নার্স রোকন আহমেদকে মারধর করে। এসময় জরুরি বিভাগেও ভাংচুর করা হয়। স্থানীয়রা এগিয়ে এলেও ওয়ার্ডে গিয়ে ফায়জুর স্বপ্না আক্তার নামের এক সিনিয়র স্টাফ নার্সকেও টানাহেছরা করে। এসময় তারা বৃহস্পতিবার (১২ জুলাই) সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত কর্মবিরতির ঘোষণাও দেন।

এঘটানায় সংগঠনের পক্ষ থেকে ফায়জুর রহমানের বিরুদ্ধে বাসাইল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে বলেও সংগঠনের নেতারা জানান। ফায়জুর বাসাইল পূর্বপাড়ার মৃত মজিবর রহমানের ছেলে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, উপজেলা কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি দেওয়ান লুৎফর রহমান, সাধারণ সম্পাদ জুবদিল খান প্রমুখ। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কয়েকদিন যাবৎ মেডিক্যাল অফিসার নিয়মিত আসে না বলে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শেফালী খাতুন মারধরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘হাসপাতালে মেডিক্যাল অফিসারের স্বল্পতা রয়েছে। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। এর আগেও এ হাসপাতালে একাধিক মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এ কারণে কোনও ডাক্তার হাসপাতালে আসতে চায় না।’

বাসাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান বলেন, ‘এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ব্রেকিং নিউজঃ