Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

বসন্তবরণ ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে ফুলের চাহিদা

শেয়ার করুন

নোমান আব্দুল্লাহ ॥
বসন্ত বরণ এবং বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে টাঙ্গাইলে ফুল ব্যবসায়ীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন। অন্যান্য সময়ের তুলনায় বিভিন্ন দিবস উপলক্ষে ব্যবসায়ীরা প্রচুর পরিমাণে ফুল বিক্রি করে থাকেন। ফুলের ভালো উৎপাদন ও বাজারে ভালো দাম থাকায় এবার লাভবান হওয়ার প্রত্যাশা করছেন ব্যবসায়ীরা। টাঙ্গাইল শহরের বিভিন্ন ফুলের দোকানে গোলাপ, গ্লাডিয়াস, রজনীগন্ধা, গাঁদাসহ নানা ধরনের ফুল বিক্রি হচ্ছে প্রচুর। শহরের ফুলের দোকানগুলোতে ব্যস্ততা লক্ষ্য করা গেছে।
বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিন পহেলা ফাল্গুন। সারাদেশের মতো টাঙ্গাইলেও নানা আয়োজনে বরন করে নেয়া হয়েছে ঋতুরাজ বসন্তকে। সকাল থেকে ভিড় লক্ষ করা গেছে শহরের সকল ফুলের দোকানগুলোতে। সকল বয়সী নারী-পুরুষ বর্নিল সাজে সজ্জিত হয়ে বসন্ত বন্দনা, বসন্ত কথন, ফুলের প্রীতি বন্ধনী বিনিময়, আবির বিনিময় ও বসন্ত আড্ডায় বরণ করে নেন ঋতুরাজ বসন্তকে।
এদিকে আজ বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ভ্যালেন্টাইনসডে বা বিশ্ব ভালবাসার দিন। দিবসটি উদযাপনে পিছিয়ে নেই টাঙ্গাইল জেলার সববয়সী মানুষও। সারা পৃথিবীর সাথে তাল মিলিয়ে ভালোবাসা দিবসকে বরণ করে নিচ্ছেন টাঙ্গাইল জেলার বিভিন্ন বয়সের মানুষ। এ দিন প্রিয়জনকে ফুল, মিষ্টি, চকলেট, কার্ডসহ বিভিন্ন ধরনের উপহার দিচ্ছেন সবাই। তবে ফুলের চাহিদাই বেশি। আর ফুলের চাহিদা বেশি থাকায় ফুলের দোকানগুলোতেও ভিড় করছে মানুষ।
আর আগামী (২১ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফুলের চাহিদা রয়েছে প্রচুর। এদিন অগণিত মানুষ শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের স্মরণ করেন।
টাঙ্গাইল শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সেখানকার ফুল ব্যবসায়ীরা ফুল বিক্রি করছেন। আর ফুল কিনছেন বিভিন্ন বয়সের মানুষ। কেউ বা ফুল কাটছেন আবার কেউ কেউ ফুলের তোড়া বানাচ্ছেন। আবার অনেকে শহরের বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে এবং অলিতে গলিতেও ফুল বিক্রি করতে দেখা গেছে।
এ বিষয়ে কথা হয় টাঙ্গাইল শহরের ভিক্টোরিয়া রোডের ফুল ঘরের মালিক ও ফুল ব্যবসায়ী মহি উদ্দিনের সাথে। তিনি টিনিউজকে বলেন, আমরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছি। বসন্ত বরণের জন্য ফুলের চাহিদা ছিল প্রচুর। প্রচুর ফুলও বিক্রি হয়েছে। অপরদিকে বিশ্বভালোভাসা দিবস উপলক্ষেও অনেকেই ফুল কিনচ্ছেন। ভাল ব্যবসা হচ্ছে। আর একুশে ফেব্রুয়ারির কয়েকদিন আগেই ফুলের চাহিদা বেড়ে যাবে কয়েকগুণ। আর তখন ফুলের দামও বেশি থাকবে। কোন দিবস উপলক্ষে ফুলের চাহিদা থাকে প্রচুর, আর তখন আমাদের ব্যবসা জমজমাট থাকে। আমরা ফুল বিক্রি করে লাভবান হচ্ছি।
অপর ফুল ব্যবসায়ী জয়নাল মিয়া টিনিউজকে বলেন, আমি আশা করছি লক্ষাধিক টাকার মতো ফুল বিক্রি হবে। আমাদের এখানে গোলাপ, গাঁদা, রজনীগন্ধা, গ্লাডিয়াস, জারবেরা, জিপসি ফুল বেশী বিক্রি হয়ে থাকে। ফুলের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় ফুলের দামও বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের এখানে ছোট-বড় মিলিয়ে বেশকয়েকটি দোকান রয়েছে। আমরা আশা করছি বসন্তবরণ, বিশ্ব ভালোভাসা দিবস এবং অমর ২১শে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে এই দোকানগুলো থেকে এবার ৮ থেকে ১০ লাখ টাকার ফুল বিক্রি হবে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ