নাগরপুরে প্রধান শিক্ষক লাঞ্ছনায় ফুসে উঠেছে শিক্ষক-শিক্ষার্থী

শেয়ার করুন

নাগরপুর প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার বেটুয়াজানি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শামস উদ্দিনকে শারিরীক ভাবে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় ফুসে উঠেছে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। দোষীদের শাস্তির দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মত সোমবার (১৫ জুলাই) স্থানীয় আলহাজ¦ রমজান আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও জরিপননেসা স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করেছে। রোববার রাতে প্রধান শিক্ষক মো. শামস উদ্দিন বাদী হয়ে নাগরপুর থানায় মামলা করেছেন। নাগরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. গোলাম মোস্তফা মন্ডল মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সোমবার (১৫ জুলাই) সকালে উপজেলার নাগরপুর-মির্জাপুর সড়কের পংবাইজোড়ায় আলহাজ্ব রমজান আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় ও জরিপননেসা স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে। এসময় আলহাজ্ব রমজান আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিনোদ চন্দ্র সরকার বেটুয়াজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দ্রুত এর সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার আহবান জানান। জরিপননেসা স্কুল এন্ড কলেজের ষষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী সোনালী আক্তার শিক্ষককে মারধোরের প্রতিবাদ করে দোষীদের শাস্তি দাবী করেন।
উল্লেখ্য বেটুয়াজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর ঘেষে মূল সড়কের পাশে কয়েক বছর যাবৎ দোকান ঘর নির্মাণ করে ব্যবসা করে আসছিল ওই বিদ্যালয়ের দাতা সদস্য মো. শফিকুল ইসলাম। শনিবার (১৩ জুলাই) বিকেলে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিদ্যালয়ের পাকা সীমানা প্রাাচীর নির্মান করতে গেলে প্রধান শিক্ষক মো. শামস উদ্দিন ও দোকান মালিক শফিকুলের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শফিকুল তার লোকজন নিয়ে প্রধান শিক্ষক ও অফিস সহকারীকে মারধর করে। এ ঘটনায় পরদিন রোববার বিদ্যালয়ের শিক্ষাথীরা রাস্তায় গাছের খন্ড ফেলে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। পরে পুলিশ ঘটনা স্থলে এসে দায়ী ব্যাক্তিদের আইনের আওতায় আনার আশ^াস দিলে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেয়।
এ ব্যাপারে নাগরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. গোলাম মোস্তফা মন্ডল শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, বেটুয়াজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শামস উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা করেছে। দোষীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ