নাগরপুরে করোনায় কর্মহীনদের পাশে নেই রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার, নাগরপুর ॥
বিশ্বব্যাপী বিপর্যয় সৃষ্টি করা প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের আক্রমণ যেন দিন দিন বেড়েই চলেছে। ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে টাঙ্গাইলের নাগরপুরের অনেক মানুষই কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে। সরকারি ভাবে কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হলেও তা চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল। এমত অবস্থায় টাঙ্গাইলের নাগরপুরের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিরা অসহায়দের পাশে এগিয়ে আসলেও এখনও পিছিয়ে রয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা। সবসময় নিজেদেরকে জনগণের কল্যাণের জন্য রাজনীতিবিদ দাবী করলেও এই দুর্যোগকালীন সময়ে অসহায়দের পাশে তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।
সূত্র বলছে, প্রাণঘাতি এই ভাইরাসে এরই মধ্যে পৃথিবীর লক্ষ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে রয়েছে মৃত্যুঝুঁকি। আর এই ভাইরাসটি খুব কম সময়ের মধ্যে এক জায়গা থেকে অন্য জায়াগায় স্থানান্তর হতে পারে। ইতোমধ্যে বিশে^র বিভিন্ন দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন লক্ষাধিক মানুষ। এতদিন এই ভাইরাস বাংলাদেশের বাইরে থাকলেও এবার বাংলাদেশেও ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। আর টাঙ্গাইলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছড়াচ্ছে নাগরপুরে। ইতিমধ্যে নাগরপুরে ৪ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। শতাধিক বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। উপজেলার সকল প্রবেশমুখে পুলিশের চেকপোষ্ট স্থাপন করা হয়েছে। কিন্তু খাবারের প্রয়োজনে মানুষ জীবনের ঝুকি নিয়ে ঘর থেকে রাস্তায় বেড়িয়ে আসছে।
জানা যায়, সর্বশেষ বিগত ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ১১ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দেন। নির্বাচনের আগে উপজেলাবাসীকে কথার ফুলঝুড়ি দিয়ে মনোনয়নপত্র কেনেন অনেকেই। এছাড়া বিগত ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও অংশ নেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা। অনেকেই অভিযোগের সূরে বলেন, নির্বাচনের সময় নেতারা পোষ্টার ও ব্যানার লাগিয়ে যে পরিমান অর্থ ব্যয় করেন তার সামান্য অংশ যদি এখন এই দূর্যোগের সময় অসহায় মানুষের পেছনে ব্যয় করতো তাহলে মানুষের কষ্ট কিছুটা হলেও লাঘব হতো।
নাগরপুর উপজেলায় যারা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে বা দায়িত্বে রয়েছেন তাদের অনেকেই বিত্তশালী। আবার অনেকে বড় ব্যবসায়ী। তারপরেও জনগণের কল্যাণে তারা এগিয়ে আসছেন না। বিশেষ করে বর্তমান সময়ে সারাবিশে^র মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত দুর্যোগ সৃষ্টিকারী প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি সামলাতেও তাদের দেখা পাওয়া যাচ্ছে না। যেখানে এই করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার একের পর এক কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন সেখানে নাগরপুরের শীর্ষ রাজনৈতিক নেতারা একেবারেই নিরব ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন।
সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনও এই করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় এগিয়ে আসছেন। অনেকে কোনো প্রচার প্রচারণা ছাড়াই নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী এগিয়ে আসছেন। সেই জায়গায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতারা যেন ঘুমিয়ে দিন পার করছেন। তারা যেন জনগণের ধার ধারে না।
স্থানীয় সূত্র বলছে, প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় এখন পর্যন্ত মাঠে দেখা যায়নি সাবেক মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, সাবেক সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যানসহ গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থাকা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দদেরকে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ