ধনবাড়ীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক গ্রেফতার

শেয়ার করুন

ধনবাড়ী প্রতিনিধি ॥
টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে স্কুল ছাত্রীকে (১৪) জোরপূর্বক ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে দুই সন্তানের জনক সোহেল রানার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ধনবাড়ী উপজেলার পাইস্কা ইউনিয়নের দড়িচন্দবাড়ী চরপাড়া গ্রামের সোহেল রানার মুদি দোকানে। ধর্ষণের শিকার মেয়েটি স্থানীয় একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যলয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। ধর্ষক সোহেল রানা দড়িচন্দবাড়ী চরপাড়া গ্রামের আয়নাল হকের ছেলে।
এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষক সোহেল রানাকে গ্রেফতার করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মঙ্গলবার (৭ মে) আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে। এছাড়া ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে স্কুল ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ধনবাড়ী থানায় সোহেল রানার বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছে।
ধনবাড়ী থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ধনবাড়ী উপজেলার একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ূয়া ওই স্কুলছাত্রী সোমবার (৬ মে) ভোরে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ীর বাইরে গেলে পার্শ্ববর্তী দড়িচন্দবাড়ী চরপাড়া গ্রামের আয়নাল হকের ছেলে মুদি দোকানদার সোহেল রানা তাকে ঝাপটে ধরে গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে তার মুদি দোকান ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ অবস্থায় মেয়েটি ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে মুখের বাঁধন খুলে ডাক চিৎকার দিলে পার্শ¦বর্তী লোকজন এগিয়ে এসে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে ধনবাড়ী থানা পুুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষক সোহেল রানাকে গ্রেফতার করে।
এ ব্যাপার ধনবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবর রহমান টিনিউজকে জানান, এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছে। ধর্ষক সোহেল রানাকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার (৭ মে) আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে। এছাড়া মেয়েটিকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ