Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

ধনবাড়ীতে গণধর্ষণের শিকার এসএসসি পরীক্ষার্থী

শেয়ার করুন

ধনবাড়ী প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে এসএসসি পরিক্ষার্থী এক স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধনবাড়ী নওয়াববাড়ী লিচু বাগান ছাত্রাবাসে নিয়ে ১১ জনে পালাক্রমে রাতভর গণধর্ষণ করেছে ওই এসএসসি পরীক্ষার্থী ছাত্রীকে। গণধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষার্থী ধনবাড়ী সরকারী নওয়াব ইনস্টিটিউশন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরিক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। ন্যাক্কারজনক এ ঘটনায় বুধবার (৭নভেম্বর) গণধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ১১ জনের বিরুদ্ধে ধনবাড়ী থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
ধনবাড়ী থানা পুলিশ ও ভুক্তভোগির পরিবার জানান, গত ২৭ অক্টোবর (শনিবার) ওই শিক্ষার্থীকে পরীক্ষার সাজেশন দেয়ার কথা বলে মোবাইলে ডেকে নিয়ে ধনবাড়ী নওয়াববাড়ী লিচু বাগান ছাত্রাবাসে নিয়ে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়। পরদিন রোববার সকালে মেয়েটিকে ধর্ষণের এ ঘটনা কাউকে না বলার হুমকী দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। ধর্ষণের এ ঘটনা কাউকে জানালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ঘটনার দৃশ্য ছেড়ে দেয়ারও হুমকী দেয়া হয়। পরে মেয়েটি বাসায় গিয়ে তার বাবা-মায়ের কাছে পুরো ঘটনাটি খুলে বলে। এদিকে ধর্ষণের এ ঘটনাটি প্রভাবশালী মহলের চাপে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয় আসামী পক্ষ। অবশেষে গতকাল বুধবার বিকেলে ধর্ষিতা ওই শিক্ষার্থীর বাবা আবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য (খোকন দেওয়ান) পুলিশ পাহারায় ধনবাড়ী থানায় গিয়ে ১১ জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। এদের মধ্যে ৭ জন ধনবাড়ী সরকারী নওয়াব ইনস্টিটিউশন উচ্চ বিদ্যালয়, ৩ জন ধনবাড়ী কলেজিয়েট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় এবং ১ জন ধনবাড়ী সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী বলে পুলিশ জানায়। আসামীদের গ্রেফতারের স্বার্থে এর বেশি পরিচয় জানাতে অস্বীকৃতি জানায় থানা পুলিশ।
ধনবাড়ী থানার ওসি মজিবর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গণধর্ষণের ঘটনায় ভিকিটিমের বাবা বাদী হয়ে ধনবাড়ী নওয়াববাড়ী লিচু বাগান ছাত্রাবাসের ১১ জন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেছেন। তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে এবং ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ