Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

দেলদুয়ারে স্কিম নিয়ে বিরোধে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন ॥ আহত ৬জন

শেয়ার করুন

দেলদুয়ার সংবাদদাতা ॥
টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে সেচ প্রকল্পের শ্যালো মেশিন নিয়ে বিরোধের জেরে বড় ভাইয়ের ফলার আঘাতে ছোট ভাই বাদল মিয়া (৫০) নিহত হয়েছেন। বুধবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল পৌনে ১০টায় উপজেলা সদরের সানবাড়ি গ্রামের দক্ষিণপাশে ফসলের মাঠে এ ঘটনাটি ঘটেছে। এ সময় এলাকার মাতবরসহ উভয়পক্ষের আরও ৬ জন গুরুতর আহত হয়েছে।
দেলদুয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুল ইসলাম টিনিউজকে জানান, উপজেলা সদর ইউনিয়নের টেরিয়াঘোনা গ্রামের মৃত মনির উদ্দিনের স্থাপিত একটি শ্যালো মেশিন নিয়ে তার ৫ ছেলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এর আগে স্থানীয় মাতবররা একাধিকবার সালিশ দরবার করেও বিরোধের মিমাংসা করতে পারেনি। বড় ভাই তারা মিয়া ছোট ভাইদের মেশিনের ভাগ দিতে বরাবরই অস্বীকার করে আসছিল। এর মধ্যে মেঝ ভাই বাদল মিয়া আট দিন আগে বিদেশ থেকে বাড়ি এলে ৪ ভাই মিলে আজ বুধবার সকালে ওই শ্যালো মেশিনের দখল নিতে যায়। একপর্যায়ে বড় ভাই তারা মিয়া এবং তার ছেলেদের সঙ্গে প্রথমে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। পরে লাঠি-ফলা-দা ও টেটাযুদ্ধ শুরু হয়। এতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত মাতবরসহ উভয়পক্ষের ৭ জন গুরুতর আহত হন। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন।
পরে তাদেরকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাদল মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। আহতরা হলো- দেলদুয়ার উত্তরপাড়ার জিন্নত আলীর ছেলে ইব্রাহিম ইবু (৫০) টেটাবিদ্ধ, ফাজিলহাটি ইউনিয়নের বেতবাড়ি গ্রামের হাকিম মিয়ার ছেলে দয়াল মিয়া (৫০), টেরিয়াঘোনা গ্রামের মৃত মনির উদ্দিনের ছেলে আয়নাল (৪৫) ও তার ভাই সমেজ উদ্দিন (৪৭), তারা মিয়ার ছেলে মনির হোসেন (২৪) ও দেলদুয়ার পশ্চিমপাড়ার মৃত কালু মিয়ার ছেলে মনির উদ্দিন মাতাবর (৬৫)।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ