Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

টাঙ্গাইল প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগে পুলিশ এসি দল চ্যাম্পিয়ন

শেয়ার করুন

মোজাম্মেল হক ॥
প্রথমবারের মতো অংশ নিয়ে টাঙ্গাইল পুলিশ এসি দল প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। দলটি গতবারের চ্যাম্পিয়ন ইয়ুথ ক্লাবকে হারিয়েছে ২-০ গোলে। বুধবার (৫ ডিসেম্বর) বিকালে টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে ঢাকা সাইফ পাওয়ার টেকের আর্থিক সহযোগিতায় টাঙ্গাইল জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন (ডিএফএ) আয়োজিত প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগের ফাইনালে টাঙ্গাইল পুলিশ এসি দল ২-০ গোলে ইয়ুথ ক্লাবকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরভ অর্জন করেছে। খেলায় টাঙ্গাইল পুলিশ এসি দল তুলনামূলক ভালো খেলেই যোগ্য দল হিসেবেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। পুলিশ খেলার শুরু থেকেই পুরো ম্যাচে গোছানো ফুটবল খেলা উপহার দেয়। খেলার ২৭ মিনিটের সময় পুলিশ এসি দলের সংঘবদ্ধ আক্রমন থেকে আমিরুলের চমৎকার কোনাকুনি পাস থেকে বাবলু মিয়া বুদ্ধিদীপ্ত প্লেসিং শটে ইয়ুথ ক্লাবের গোলরক্ষক সুমনকে পরাস্ত করে (১-০) গোলে এগিয়ে যায়। খেলায় পিছিয়ে পরে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ইয়ুথ ক্লাব আক্রমন করে খেলতে থাকে। কিন্তু দক্ষ স্টাইকারের অভাবে আক্রমন ফলফসু হয়নি। পুলিশ এসি দলের ডি-বক্সের বাইরে থেকে কয়েকটি দুর পাল্লার শট নিলে তা থেকে কোন গোল হয়নি। উল্টো পুলিশ দলের কাউন্টার আক্রমন থেকে ৭৬ মিনিটের সময় পুলিশ এসি দলের বাবলু মিয়া আবারো গোল করে (২-০) দলকে নিশ্চিত জয়ের দিকে নিয়ে যায়। আর ইয়ুথ ক্লাব বাকী সময় গোল করে খেলায় ফিরতে পারেনি। খেলা শেষে প্রধান অতিথি টাঙ্গাইল পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় দু’দলের খেলোয়াড়দের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহাদুজ্জামান মিয়া, সহকারী পুলিশ সুপার রাসেল মনির, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আব্দুর রোউফ খান রোকন, কাজী জাকেরুল মওলা, ফুটবল লীগ পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব সৈয়দ মাহমুদ তারেক পুলু, ফুটবল লীগ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান জামিল প্রমুখ।
ফাইনাল খেলায় সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন ইয়ুথ ক্লাবের মারুফ ও সর্বোচ্চ গোলদাতা ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের আতিক। সে লীগে ৯টি গোল করেছেন।
পুলিশ এসি দল- আজিজুল, জনি, রেজাউল করিম, জয়নাল, রবিউল, লিটন বর্মন (অধিনায়ক), নোমান আহম্মেদ, শামীম আহম্মেদ, বাবলু মিয়া, আমিরুল ও কমল বড়ুয়া।
ইয়ুথ ক্লাব- সুমন, জনি (অধিনায়ক), রাসেল-১, মিলন, রায়হান, মামুন, রুবেল, মাসুম, রাসেল-২ ও মারুফ।
রেফারী- সুজিৎ বানার্জী চন্দন। সহকারী রেফারী- হারুন অর রশীদ ও নুরুজ্জামান।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ