টাঙ্গাইলে ছাত্র হত্যায় দুই আসামীর স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি

শেয়ার করুন

আদালত সংবাদদাতা ॥
টাঙ্গাইলে পৌর শহরে কলেজছাত্র ইশরাক হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত আরো দুইজন বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলাম ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরিফুল ইসলাম ওই দুইজনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন।
টাঙ্গাইল সদর থানার পরির্দশক (অপারেশন) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন টিনিউজকে জানান, কলেজ ছাত্র হত্যার ঘটনায় তার পিতা বাদি হয়ে শিহাব, সাব্বির, সোহান ও ফয়সালসহ আরো অজ্ঞাতনামা ৪/৫জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ঘটনাস্থলের সিসি টিভি ফুটেজ ও স্থানীয় লোকজনের স্বাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে আসামীদের পরিচয় শনাক্ত করে তিনজন আসামী গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত শিহাব ও সাব্বিরকে তিনদিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করেন এছাড়া সোহান আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেন। হত্যার সাথে তাদের অপর দুই বন্ধু টাঙ্গাইল পৌর শহরের বেপারীপাড়া এলাকার অমিত হোসেন ও হিমেল জড়িত বলে তারা পুলিশকে জানায়। পুলিশ বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাতে কুমিল্লার দাউদকান্দি মেঘনাব্রিজ এলাকা থেকে দুইজনকে গ্রেফতার করে। হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে তারা বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।
হত্যাকান্ডের শিকার ইশরাক ও সোহান জেলা আওয়ামী লীগের দুই নেতার অনুসারী ছিলেন। মূলত এলাকার আধিপত্য নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ বাঁধে। বেশ কিছুদিন আগে ইশরাক আদালতপাড়া এলাকায় সোহানকে এক কক্ষে আটকে রেখে মারধর করে। বিষয়টি তার সম্মানে লাগে। এছাড়াও মাদক নিয়ে তাদের মধ্যে ঝামেলার সৃষ্টি হয়। সোহান এ কারণে ইশরাককে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করে। এ ঘটনায় সে তার বন্ধুদের সহায়তা চায়। পরিকল্পনামত তারা দুইজনসহ অন্য বন্ধুরা এ হত্যাকান্ড ঘটায় বলে স্বীকারোক্তিতে আদালতকে জানান।
উল্লেখ্য, টাঙ্গাইল ইন্সটিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলোজির টেক্সটাইল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তানভির মাহতাব ইশরাককে গত (৫ ফেব্রুয়ারি) বিকলে চারটার দিকে কুপিয়ে হত্যা করে লাশ টাঙ্গাইল শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানের পাশে নজরুল সেনা সরকারি প্রাইমারী স্কুলের সামনে ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে পুলিশ বিকেলে লাশ উদ্ধার করে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ