টাঙ্গাইলে এবার ব্যতিক্রমী ঈদের অপেক্ষা

শেয়ার করুন

এম কবির ॥
এক ব্যতিক্রমী ঈদ উদযাপনের অপেক্ষায় টাঙ্গাইলবাসী। সোমবার (২৫ মে) উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর। প্রতি বছর মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার পর টাঙ্গাইলবাসী ঈদ আনন্দে মেতে উঠলেও এবার সেই সুযোগ পাচ্ছেন না কেউ। করোনা ভাইরাসের প্রভাবের কারণে বন্দী জীবনেই ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতি সবার। ইতোমধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে এবারের ঈদ ঘরেই উদযাপনের জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। ফলে এবার ঈদের সেই খুশির আমেজ থাকছে না। একান্ত ঘরোয়া পরিবেশে পরিবার-পরিজনের মধ্যেই ভাগাভাগি করে নিতে হচ্ছে ঈদের আনন্দ। করোনার কারণে ঈদগাহে বা খোলা জায়গায় এবার ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। ফলে নামাজ শেষে কোলাকুলির সেই পরিচিত দৃশ্যের এবার দেখা মিলবে না। এমনকি দেখা যাবে না একে অপরের সঙ্গে হাত মেলানোর দৃশ্যও।
এবার ঈদে সেই ঘরে ফেরার আনন্দ নেই। নেই কেনাকাটার জমকালো আমেজ। রোজার পুরো একমাস প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হননি কেউ। এরই মধ্যে রমজান শেষে আবার হাজির হয়েছে ঈদ-উল-ফিতর। কিন্তু বন্দী জীবনের প্রতীক্ষা ঈদে এসেও শেষ হচ্ছে না। করোনা ভাইরাস বিস্তারের কারণে গত দু’মাসের বেশি সময় ধরে সারাদেশে চলছে লকডাউন। এই লকডাউনের মধ্যে এবার যে যার অবস্থানে থেকেই ঈদ উদযাপন করতে হচ্ছে। প্রিয়জনের সান্নিধ্য থেকেও এবার বঞ্চিত হতে হচ্ছে করোনা ভাইরাসের কারণে। ফলে ঈদ-উল-ফিতরের উৎসব এবার আর আগের বছরের মতো হবে না। ঈদের নামাজ আদায়, বাইরে ঘুরতে যাওয়া, নানা ধরনের আয়োজন সবকিছুতেই এবার ভাটা পড়তে চলেছে।
এদিকে করোনা ভাইরাসের মহামারীর মধ্যে এবার রোজার ঈদের দিন ঈদগাহ বা খোলা জায়গার বদলে বাড়ির কাছে মসজিদে ঈদের নামাজ পড়তে বলেছে সরকার। সেই সঙ্গে মসজিদে ঈদ জামাত আয়োজনের ক্ষেত্রে সুরক্ষার ব্যবস্থা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বেশ কিছু শর্ত দিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় বলেছে, এসব নির্দেশনা না মানলে ‘আইনগত ব্যবস্থা’ নেয়া হবে। সম্প্রতি ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইসলামী শরিয়তে ঈদগাহ বা খোলা জায়গায় ঈদ-উল-ফিতরের নামাজ পড়তে উৎসাহ দেয়া হয়েছে। কিন্তু বর্তমানে সারাবিশ্বসহ আমাদের দেশে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিজনিত ওজরের কারণে মুসল্লিদের জীবন ঝুঁকি বিবেচনা করে এ বছর ঈদগাহ বা খোলা জায়গার পরিবর্তে ঈদের নামাজের জামাত নিকটস্থ মসজিদে আদায় করার জন্য অনুরোধ করা হলো।
টাঙ্গাইলে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পর গত (৬ এপ্রিল) টাঙ্গাইলের সব মসজিদে বাইরে থেকে মুসল্লি ঢোকার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় প্রশাসন। ইমাম-মুয়াজ্জিনসহ মসজিদের খাদেমরা মিলে মোট কতজন ভেতরে জামাতে অংশ নিতে পারবেন, তার সীমা বেঁধে দেয়া হয়। রোজার শুরুতে তারাবির নামাজের ক্ষেত্রেও একই নির্দেশনা দেয়া হয়। গত (৬ মে) থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে আবার জামাতে নামাজ পড়ার অনুমতি দেয়া হয়। সে সময় মসজিদের নামাজ পড়ার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মানার যে শর্তগুলো দেয়া হয়েছিল, সেগুলো ঈদের জামাতের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে। যেহেতু এবার ঈদগাহে যেতে নিষেধ করা হচ্ছে, সেহেতু এবার একই মসজিদে একাধিক ঈদের জামাত হবে বলে জানানো হয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে।
প্রতি বছর ঈদ-উল-ফিতর এলেই টাঙ্গাইল শহর নতুন সাজে সেজে ওঠে। মাসব্যাপী কোনাকাটা শেষে ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতি থাকে প্রতি ঘরে ঘরে। এছাড়া এই উপলক্ষে শহরকে সাজানো হয় বিশেষভাবে। সড়ক দ্বীপগুলো আলোকসজ্জায় ভরে ওঠে। বিনোদন কেন্দ্রেগুলোতে থাকে আলাদা প্রস্তুতি। ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তৈরি করা হয় একাধিক তোরণ। ঈদগাহ মাঠও বিশেষভাবে সেজে ওঠে। কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে জামাত অনুষ্ঠানের জন্য ১৫ দিন ধরেই প্যান্ডেল সাজানো হয়। নামাজের জন্য ওযুখানাসহ বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়। এবার সেই প্রস্তুতি নেই। করোনার কারণে এবারই প্রথম টাঙ্গাইল কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। পুরো একমাস সিয়াম সাধানার পর আবার এসেছে ঈদ। ইসলামী বিশেষজ্ঞরা বলছেন পূর্ণ একমাস সিয়াম সাধনার পর ঈদ উৎসব মুসলিম জাতির প্রতি সত্যিই মহান রাব্বুল আলামীনের পক্ষ থেকে এক বিরাট নিয়ামত ও পুরস্কার। মুসলিম উম্মাহর প্রত্যেক সদস্যের আবেগ, অনুভূতি, ভালবাসা, মমতা ঈদের এ পবিত্র ও অনাবিল আনন্দ উৎসবে একাকার হয়ে যায়। কিন্তু এবার প্রথম এক ব্যতিক্রমী ঈদ উৎসবে শামিল হতে যাচ্ছে টাঙ্গাইলবাসী। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলোর পক্ষ থেকে ঈদ ফিতর উপলক্ষে টাঙ্গাইলবাসীকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।
ইসলামি বিশেষজ্ঞদের মতে, ঈদ মুসলমানদের জীবনে শুধু আনন্দ-উৎসবই নয় বরং এটি একটি মহান ইবাদত যার মাধ্যমে মুসলিম উম্মাহ ঐক্যবদ্ধ হওয়ার প্রেরণা খুঁজে পায়। ধনী-গরিব, কলো-সাদা, ছোট-বড়, দেশী বিদেশী সকল ভেদাভেদ ভুলে যায়। সব শ্রেণী ও সকল বয়সের নারী-পুরুষ ঈদের জামাতে শামিল হয়ে মহান আল্লাহ শোকর আদায়ে নুয়ে পড়ে। ইসলামী নিয়মানুসারে ঈদের করোনার কারণে এবার ঈদগাহে ঈদের জামাত অনুষ্ঠানের উপর সরকার আগেই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। ফলে এবার দেশের কোন ঈদগাহে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে না।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ