Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

ছানোয়ার হোসেন এমপি’র বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার: টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে নির্বাচন কমিশনে। বুধবার (২০মার্চ) টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ ও সতন্ত্র প্রার্থী খোরশেদ আলম প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দেন। খোরশেদ আলম বর্তমান সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের অব্যাহতি প্রাপ্ত সভাপতি।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, আগামী ৩১মার্চ অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার লক্ষ্যে নির্বাচনী আচরন বিধি প্রণীত ও প্রচারিত আছে। সেখানে সংসদ সদস্যসহ সরকারি সুবিধাভোগীদের নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রমের অংশগ্রহণে নিষেধ করা হয়েছে। কিন্তু সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে টাঙ্গাইল-৫ আসনের সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘন করে তার সমর্থিত প্রার্থী শাহজাহান আনসারীর নৌকা প্রতীকের পক্ষে বিভিন্ন সভা-সমাবেশের মাধ্যমে এবং ব্যক্তিগত পর্যায়ে মোবাইলের মাধ্যমে যোগাযাগ করে প্রচার কার্যক্রম চালাচ্ছেন। যা আচরন বিধির সুস্পষ্ট লংঘন। ফলে ভোটার এলাকায় সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়ার ক্ষেত্রে যথেষ্ট সন্দেহের কারণ ঘটছে। এ অবস্থায় নির্বাচন হলে সাধারণ ভোটার ভোট প্রদানে অনীহা দেখাবে এবং সরকারের সুনাম ক্ষুণœ হবে। নির্বাচন হবে প্রশ্নবিদ্ধ। উল্লেখ্য যে, গত ৩ ও ১৮ মার্চ এমপির বাসভবনে নির্বাচনী সমাবেশ এবং গত ১৯ মার্চ টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে নির্বাচনী সমাবেশসহ বিভিন্ন জায়গায় তিনি নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন।

এমতাবস্থায় সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন নির্বাচনী প্রচারণ বন্ধসহ প্রয়োজনীয়তা ব্যবস্থা গ্রহণে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সুমর্জি কামনা করেন খোরশেদ আলম।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (১৯মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে খোরশেদ আলম সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে তিনি জানান, উপজেলা নির্বাচনে কোন বিদ্রোহী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলে তার বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না- আওয়ামী লীগ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এজন্য আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি। আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন গত সোমবার বর্ধিত সভা ডেকে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে আমাকে অব্যাহতি দিয়েছেন। এটি আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র ও নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন। যা তিনি করতে পারেন না।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ