কোরবানীর মহিষের আঘাতে ১২জন আহত

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টারঃ টাঙ্গাইলে কোরবানীর মহিষ জবাইয়ের সময় হামলে পড়ছে মানুষের উপর। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ১২ জন। আতঙ্কে ঘাটাইল ও ভূঞাপুর উপজেলার কয়েকটি গ্রামের মানুষ। এ ঘটনায় ভূঞাপুর উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ মহিষের পেছনে ছুটছেন। সোমবার (১২ আগষ্ট) সন্ধ্যা নাগাদ মহিষটি ভূঞাপুরের কাগমারিপাড়া বিলে অবস্থান করছে। পুলিশ সেটিকে ঘিরে রেখেছে। যাতে আর কাউকে আহত করতে না পারে। উৎসুক হাজার হাজার জনতা কাগমারি পাড়া বিলে ভিড় করছে মহিষটি দেখার জন্য।

জানা গেছে, ঘাটাইল উপজেলার যুগিহাটি গ্রামের আরিফুল ইসলাম একটি মহিষ ক্রয় করেন কোরবানী দেয়ার জন্য। সোমবার (১২ আগষ্ট)  সকালে ঈদের নামাজ শেষে কোরবানী দেয়ার সময় মহিষটি ক্ষিপ্ত হয়ে আরিফ ও তার ভগ্নিপতিসহ ৫জনকে আহত করে। পরে মহিষটি রাস্তায় দৌঁড়াতে থাকে। এ সময় রাস্তায় বেশ কয়েজনকে আহত করে মহিষটি চলে আসে ভূঞাপুর উপজেলার কাগমারি পাড়া এলাকায়। সেখানে শুকুর মাহমুদ, আব্দুস সালামসহ ৭জনের উপর হামলে পড়ে মহিষটি। এদের মধ্যে কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। দুপুরের পর থেকে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা মহিষের পেছনে ছুটেও সেটিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি। সোমবার (১২ আগষ্ট)  সন্ধ্যায় মহিষটি কাগমারি পাড়া বিলে অবস্থান করছে। ভূঞাপুর থানার উপ পরিদর্শক শামসুল ইসলাম জানান, দুপুরের পর থেকে মহিষটি আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু সম্ভব হচ্ছে না। সেখানে ভূঞাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঝোটন চন্দ অবস্থান করছেন। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, মহিষটি সম্ভবত পাগল হয়ে গেছে। সাধারণ মানুষের জন্য এটি এখন বিপদজনক। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি পশুটিকে আটক করার জন্য।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ