Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

কৃষি উৎপাদন খরচ কমাতে যান্ত্রিকীকরণ করতে হবে- ড. আব্দুর রাজ্জাক

শেয়ার করুন

আব্দুল্লাহ আবু এহসান ॥
আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়ামের অন্যতম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, নতুন নতুন কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে কৃষি উৎপাদন খরচ কমাতে কৃষিকে যান্ত্রিকীকরণ করতে হবে। আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছি। এক সময় বাংলাদেশ ছিল খাদ্য ঘাটতির দেশ। মঙ্গা কবলিত দেশ। এখন আমাদের দেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। এখন আমাদের লক্ষ্য নিরাপদ ও পুষ্টিমাণ সমৃদ্ধ খাদ্য নিশ্চিত করা। এছাড়াও আধুনিক কৃষি ও বাণিজ্যিক কৃষির জন্য কাজ করে যাচ্ছে সরকার। কৃষিকে লাভজনক করতে হলে কৃষিপণ্য রপ্তানির কোন বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধুর কণ্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। কৃষকরা যাতে তাদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য যথাসময়ে বাজারে বিক্রি করতে পারেন তার জন্য এলাকার সকল রাস্তা-ঘাঁট পাঁকা করা হচ্ছে।
কৃষিমন্ত্রী শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৫০ শয্যা থেকে ১০০ শয্যায় উন্নীত করার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমান সরকারের চলমান উন্নয়ন আগামী প্রজন্মের জন্য। আগামী প্রজন্মের আমাদের সন্তানদেরকে উন্নত শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। যাতে তারা দেশ প্রেমিক হয়ে সত্যিকার অর্থে আধুনিক সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারে। তাদের স্বপ্ন দেখাতে হবে। এ বছর কৃষক তার উৎপাদিত ধানের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। সামনের দিনে এমন ঘটনা যাতে না ঘটে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আগাম ব্যবস্থা নেয়া হবে। মাঠ পর্যায়ে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনার প্রযুক্তি সহায়তাসহ সবব্যবস্থা নেয়া হবে। এবার যাদের কাছ থেকে ধান কেনা হয়েছে তাদের তালিকা দেখে অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও তিনি বলেন। ধানসহ খাদ্যে উদ্বৃত্ত দেশে আলু এখন ৪০ লাখ টন উদ্বৃত্ত আছে। মানুষের দেহ সচল রাখার জন্য যেমন রক্ত অপিরহার্য। তেমনি দেশের অর্থনীতি সচল রাখার নিয়ামক বিদ্যুৎ। সেই বিদ্যুৎ উৎপাদনে সরকার রেকর্ড গড়েছে। প্রতিটি স্তরে উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশ এখন সারা বিশ্বের কাছে রোল মডেল।

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. শরীফ হোসেন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৫০ শয্যা থেকে ১০০ শয্যায় উন্নীতের উদ্বোধনী সভায় বক্তৃতা করেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি বিভাগের এসএসকে’র মহাপরিচালক ডা. শাহাদৎ হোসেন মাহমুদ, স্বাচিপে’র কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আবদুল আজিজ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিভিএইচসি’র লাইন ডাইরেক্টর অধ্যাপক ডা. আবুল হোসেন খান, স্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম, পরিচালক (হাসপাতাল) ডা. আমিনুল হাসান, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম, মধুপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছরোয়ার আলম খান আবু, মধুপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার শফিউদ্দিন মনি প্রমুখ।
এর আগে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকালে টাঙ্গাইল ধনবাড়ী উপজেলার পাইস্কা পুরাতন বাজারে চার কোটি টাকা ব্যয়ে (চার তলা) গ্রামীণ মার্কেট নিমার্ণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

পাইস্কা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ বজলুর সভাপতিত্বে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ধনবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হারুনার রশিদ হীরা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা সিদ্দিকা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বদিউল আলম মঞ্জু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হালিম, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মীর ফারুক আহমাদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রমান, ভাইস চেয়ারম্যান শামছুল হুদা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেব-উন-নাহার, উপজলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহমুদা খাতুন, শামীম রেজা, তারেক ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মনিরুজ্জামান বকল, উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মশিউর রহমান মিন্টু প্রমূখ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

ব্রেকিং নিউজঃ